শুক্রবার, ২৩ জুলাই ২০২১, ০৮:৫০ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
Logo ঝালকাঠিতে করোনায় প্রাণ কেড়ে নেয়া ২৫ জনকে দাফন দিয়েছে শাবাব ফাউন্ডেশন Logo নলছিটির ১০টি ইউনিয়ন পরিষদের সাধারণ ও সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্যদের শপথ গ্রহণ। Logo নলছিটিতে কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নে মাঠে পৌর মেয়র Logo আমি ব্রাজিলিয়ান না হলে আর্জেন্টিনাকে সমর্থন করতাম: নেইমার Logo ফেরিতে সব ধরনের যাত্রীবাহী গাড়ি ও যাত্রী পরিবহন বন্ধ। Logo রূপগঞ্জে সেজান জুস কারখানায় আগুন, নিহত ২, অর্ধশত আহত। Logo ১৪ বছর পর ফাইনালে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা Logo গণটিকার নিবন্ধন শুরু বুধবার, প্রয়োগ আগামী সপ্তাহে। Logo গিনেস বুকে নাম লিখাতে যাচ্ছে বাংলাদেশে সবচেয়ে ছোট গরু। Logo আজ বাংলা গানের কিংবদন্তি শিল্পী এন্ড্রু কিশোরের প্রথম প্রয়াণ দিবস।

আজ বাংলা গানের কিংবদন্তি শিল্পী এন্ড্রু কিশোরের প্রথম প্রয়াণ দিবস।

প্রশাসন / ৭৩ বার পঠিত
সময় : মঙ্গলবার, ৬ জুলাই, ২০২১, ২:৩৩ অপরাহ্ণ

সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

জিলান খান, স্টাফ রিপোর্টারঃ-

গত বছরের ৬ জুলাই না ফেরার দেশে চলে যান প্লেব্যাক সম্রাট খ্যাত এন্ড্রু কিশোর। তিনি চার দশকেরও বেশি সময় ধরে সুরের জাদুতে সংগীতপ্রেমীদের মাতিয়ে রেখেছিলেন। আজ তার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে করোনা পরিস্থিতির কারণে নেই কোনো আনুষ্ঠানিকতা। তবে রাজশাহীতে পারিবারিকভাবে প্রার্থনাসহ বিভিন্নভাবে স্মরণ করা হচ্ছে এই প্লেব্যাক সম্রাটকে।

তার শত শত কালজয়ী গান এখনো মানুষের মুখে মুখে। মানুষের সুখ-দুঃখ, হাসি-আনন্দ, প্রেম-বিরহ সব অনুভূতির গানই তার কণ্ঠে পেয়েছে অনন্য মাত্রা। এরমধ্যে ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে, আমার সারা দেহ খেয়ো গো মাটি, হায়রে মানুষ রঙিন ফানুস দম ফুরাইলে ঠুস, কারে দেখাব মনের দুঃখ গো বা তুমি আমার জীবন-আমি তোমার জীবন,এক জনমের ভালবেসে ভরবে না মন, আমি চিরকাল প্রেমের কাঙাল সহ অসংখ্য শ্রোতাপ্রিয় গান আজও তাকে বাঁচিয়ে রেখেছে।

১৯৫৫ সালের ৪ নভেম্বরে রাজশাহীতে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। রাজশাহীতে জন্ম নেওয়া কিশোর সেখানেই বেড়ে ওঠেন। পড়াশোনা করেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে। এন্ড্রু কিশোরের বাবা ক্ষীতিশ চন্দ্র বাড়ৈ এবং মাতা মিনু বাড়ৈ রাজশাহী মহানগরীর বুলনপুর মিশন গার্লস হাই স্কুলের শিক্ষক ছিলেন। মায়ের কাছেই তার পড়াশোনার হাতেখড়ি। তার মা ছিলেন সংগীত অনুরাগী, তার প্রিয় শিল্পী ছিলেন কিশোর কুমার। প্রিয় শিল্পীর নামানুসারে সন্তানের নাম রাখেন কিশোর। মায়ের স্বপ্নপূরণ করতেই সংগীতাঙ্গনে পা রাখেন এন্ড্রু কিশোর।

আব্দুল আজিজ বাচ্চুর অধীনে প্রাথমিকভাবে সংগীতে পাঠ গ্রহণ শুরু করেন এন্ড্রু কিশোর। বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের পর নজরুল সংগীত, রবীন্দ্র সংগীত, আধুনিক, লোকসংগীত ও দেশাত্মবোধক গানের শিল্পী হিসেবে রাজশাহী বেতারে তালিকাভুক্ত হন।

এন্ড্রু কিশোর চলচ্চিত্রে প্লেব্যাক শুরু করেন ১৯৭৭ সালে আলম খান সুরারোপিত ‘মেইল ট্রেন’ চলচ্চিত্রের ‘অচিনপুরের রাজকুমারী নেই যে তার কেউ’ গানের মধ্য দিয়ে। তার রেকর্ডকৃত দ্বিতীয় গান বাদল রহমান পরিচালিত ‘এমিলের গোয়েন্দা বাহিনী’ চলচ্চিত্রের ‘ধুম ধাড়াক্কা’। তবে এ জে মিন্টু পরিচালিত ১৯৭৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘প্রতিজ্ঞা’ চলচ্চিত্রের ‘এক চোর যায় চলে’ গানটি গেয়ে শ্রোতাপ্রিয়তা লাভ করেন।

‘বড় ভালো লোক ছিল’ (১৯৮২) চলচ্চিত্রে প্লেব্যাক করে প্রথম জাতীয় চলচ্চিত পুরষ্কার পায়।


সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

Theme Customized By Theme Park BD