1. admin@dailynewsbangladesh24.com : admin :
শিরোনাম :
শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই পর্যটন শিল্পের পরিপূর্ণ বিকাশ হবে আমরা নাগরিক হতে পারি নি বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১ আহত ৩ বরিশালের নলছিটিতে সন্তানসহ টাকা ও স্বর্ন নিয়ে উধাও প্রবাসীর স্ত্রী শামীম ওসমানের সমাবেশে মিছিল নিয়ে যুবলীগ নেতা মুন্নার যোগদান বাংলাদেশ কমিউনিটি ডাবলিন কমিটি গঠন সংক্রান্ত রোড ম্যাপ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে ২৯ শে আগস্ট। প্রবাসী সাংবাদিকদের সাথে (আবাই) সভাপতি প্রার্থী সৈয়দ মোস্তাফিজুর রহমানের সৌজন্য সাক্ষাৎ। আয়ারল্যান্ডে প্রবাসী বাংলাদেশীদের পূর্ণমিলনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন। ছাত্রকে বিয়ে করা সেই শিক্ষিকার লাশ উদ্ধার, স্বামী আটক প্রবাসীদের পাসপোর্ট সংশোধনী এবং এনআইডি কার্ড দূতাবাসের মাধ্যমে প্রদানের দাবি জানিয়েছে আয়েবাপিসি

জিরো থেকে হিরো বাউফলের সেই সুধির নট্রর বিরুদ্ধে এবার থানায় অভিযোগ

  • আপডেট সময় : সোমবার, ২৪ মে, ২০২১
  • ৩১০ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

পটুয়াখালীর বাউফলে সেই সুধির নট্রর বিরুদ্ধে এবার থানায় অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে। উপজেলার দাশপাড়া গ্রামের শিব রতন নামের এক ব্যক্তি রবিবার দুপুরে সুধির নট্রর বিরুদ্ধে এ অভিযোগ দাখিল করেন। (অভিযোগ নম্বর ১৪৬৪ ) বাউফল থানার ওসি অভিযোগ প্রাপ্তির সত্যতা স্বীকার করেছেন।

সুধিরের নামে রয়েছে এলাকাবাসীর নানা অভিযোগ।তার বাবা কিছুদিন আগেও বাজারে শাপলা বিক্রি করতো।কিন্তু হঠাৎ করেই তার ছেলেরা কিভাবে কোটিপতি হলো সেই প্রশ্ন এখন জনমনে।জানা যায়,চাঁদাবাজী, জায়গা দখল,মাদক ব্যবসা সহ অসংখ্য অপরাধের সাথে জড়িত এই সুধির।সে নিজেকে প্রধানমন্ত্রীর ধর্ম ছেলে দাবি করে এলাকায় বিভিন্ন অপকর্ম করে বেড়ায়।

এর আগের দিন (২২মে) শিব রতন সুধির নট্রর অত্যাচার ও নির্যাতনের হাত থেকে রক্ষা পেতে বাউফল প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন করে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। ওই সংবাদিক সম্মেলনে শিব রতন সুধিরের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নাম ভাঙিয়ে কোটি টাকা মালিক হয়ে বনে যাওয়াসহ নানা অভিযোগ করেন।

শিব রতন অভিযোগ করেন, শনিবার (২২ মে) সুধির নট্রর বিরুদ্ধে বাউফল প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন করায় তিনি ক্ষুব্ধ হন এবং তাকে দেখিয়ে দেওয়ার হুমকি দেন। এ ছাড়াও তার মোবাইল নম্বরে বিভিন্ন নম্বর থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তিরা কল করে তাকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে এবং প্রাণনাশের হুমকি দেয়। সুধির নট্র নিজেকে প্রধানমন্ত্রীর ছেলে পরিচয় দেয়ায় এলাকার লোকজন ভয়ে কিছু বলতে সাহস পাননা। সুধির নট্রর বাবার নাম মৃত সুখ রঞ্জন নট্র।

এর আগে সাংবাদিক সম্মেলনে শিব রতন উল্লেখ করেন, সুধির নট্রর গ্রামের বাড়ি দাশপাড়া ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডে হলেও তিনি পৌর শহরের ৭ নম্বর ওয়ার্ডে প্রায় কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত একটি সুরম্য বাড়িতে স্ত্রী সন্তান নিয়ে বসবাস করছেন। সুধির নট্রর বাবা সুখরঞ্জন নট্র এক সময় দিনমজুর ছিলেন। শাপলা বিক্রি করে সংসার চালাতেন। আর সুধির নট্র বাউফল পৌর শহরের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা বাবু সত্যরঞ্জন সাহার বাসায় কাজ করতেন এবং সত্যরঞ্জন সাহার বৈশাখী সিনেমা হলের মাইক প্রচার করতেন। এক সময় সুধীর নট্র সত্যরঞ্জন সাহাকে বিতারিত করে ওই সিনেমা হলটি নিজের কব্জায় নিয়ে নেয়। তার ছোট ভাই সুশিল নট্র সত্যরঞ্জন সাহার নুরিয়া মার্কেটের জুয়েলারি’র দোকানের কর্মচারী ছিলেন। পরবর্তীতে সুধির জুয়েলারি দোকনটিও তার কব্জায় নিয়ে নেয়। আর এ সবই সুধির করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নাম ভাঙিয়ে তাঁর ছেলে পরিচয়ে। তাই এলাকার লোকজন তাকে প্রধানমন্ত্রীর ছেলে হিসাবেই জানে।

সুধির নট্র তার বাড়ির লোকজনসহ হিন্দু সম্প্রদায়ের অনেক পরিবারকে জিম্মি করে রেখেছেন। দাসপাড়া গ্রামের সুনিল নট্রর সাথে সুধির নট্র জমি জমা নিয়ে বিরোধের সৃষ্টি করে। তাদের বসতঘরটি ভেঙে পরলেও সুধীর নট্রর প্রধানমন্ত্রীর ছেলে পরিচয় প্রভাব দেখিয়ে তা মেরামত করতে দিচ্ছেন না। তাদের জায়গার গাছগাছালি কাটতে দিচ্ছে না। কথায় কথায় থানা থেকে পুলিশ ডেকে এনে তাদেরকে হয়রানি করেন। তার হাতে পৌর শহরের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা শ্রীধর ঠাকুর, নারায়ণ ঠাকুর, সুশান্ত ঠাকুর, ঝন্টু ঠাকুর জিম্মি হয়ে রয়েছেন। তাদের জায়গা দিয়ে সুধীরকে রাস্তা না দেওয়ায় সুধীর তাদেরকে শারিরীক ও মানুষিক নির্যাতনসহ বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করে আসছে। সুধির স্থানীয় ঝন্টু ঠাকুরের স্ত্রীকে মারধর করেছেন।

দাসপাড়া গ্রামে বিদ্যুৎ দেওয়ার নামে ঘর প্রতি বাবদ ৩ থেকে ৪ হাজার টাকা করে নিয়েছেন। সুধির নট্র তার বোনের শ্বশুরের জমি বিক্রির ১২ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। আর ওই টাকার শোকে তিনি বিষপান করে আত্মহত্যা করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নাম ভাঙ্গিয়ে সুধির নট্রর নানা অপকর্ম করায় তাঁর (প্রধানমন্ত্রীর) ভাবমূর্তি বিনষ্ট হচ্ছে।

এ ব্যাপারে বাউফল থানার ওসি আল মামুন বলেন,‘ সুধির নট্রর বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। প্রাথমিক ভাবে অভিযোগটি সাধারণ ডায়রি হিসেবে নথিভুক্ত করেছি। (নম্বর ১৪৬৪ তারিখ ২৩ মে ২০২১ ইং) অভিযোগটির সত্যতা আমরা খতিয়ে দেখবো।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর
© All rights reserved © Dainik News Bangladesh 24
Theme Customized By Shakil IT Park