1. admin@dailynewsbangladesh24.com : admin :
শিরোনাম :
আমরা নাগরিক হতে পারি নি বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১ আহত ৩ বরিশালের নলছিটিতে সন্তানসহ টাকা ও স্বর্ন নিয়ে উধাও প্রবাসীর স্ত্রী শামীম ওসমানের সমাবেশে মিছিল নিয়ে যুবলীগ নেতা মুন্নার যোগদান বাংলাদেশ কমিউনিটি ডাবলিন কমিটি গঠন সংক্রান্ত রোড ম্যাপ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে ২৯ শে আগস্ট। প্রবাসী সাংবাদিকদের সাথে (আবাই) সভাপতি প্রার্থী সৈয়দ মোস্তাফিজুর রহমানের সৌজন্য সাক্ষাৎ। আয়ারল্যান্ডে প্রবাসী বাংলাদেশীদের পূর্ণমিলনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন। ছাত্রকে বিয়ে করা সেই শিক্ষিকার লাশ উদ্ধার, স্বামী আটক প্রবাসীদের পাসপোর্ট সংশোধনী এবং এনআইডি কার্ড দূতাবাসের মাধ্যমে প্রদানের দাবি জানিয়েছে আয়েবাপিসি বাস থেকে স্বামীকে ফেলে দিয়ে নারীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, অভিযুক্ত পাঁচজন গ্রেফতার

ঝালকাঠিতে করোনায় প্রাণ কেড়ে নেয়া ২৫ জনকে দাফন দিয়েছে শাবাব ফাউন্ডেশন

  • আপডেট সময় : বুধবার, ১৪ জুলাই, ২০২১
  • ২৬৩ বার পঠিত

মুঃ মনিরুজ্জামান মুনিরঃ

প্রাণঘাতী করোনায় মৃত্যু বরণকারী ঝালকাঠীর দুইজনসহ নলছিটির ২৩ জনের দাফনকাজ সম্পন্ন করেছে নলছিটি উপজেলার একটি মানবিক সংগঠন শাবাব ফাউন্ডেশন। ২০২০ সনের মার্চ মাসে দেশে করোনা পরিস্থিতি শুরু হওয়ার পর থেকে ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলায় ১৪ জুলাই-২১ তারিখ পর্যন্ত ২৫ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে কোভিড-১৯। গত বছর ৮ মে সর্ব প্রথম উপজেলার সুবিদপুর ইউনিয়নের ভোজপুর গ্রামের ৩৫ বছর বয়সী যুবক মোঃ- নাসির উদ্দীন করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু বরণ করলে গ্রামবাসী দাফন-কাফনে অস্বীকৃতি জানায়। আর তখনই প্রশাসনের অনুরোধে নলছিটি উপজেলা শাবাব ফাউন্ডেশন তার দাফনকাজ সম্পন্ন করে। এর কয়েকদিন পরে ১৭ মে নলছিটি পৌর এলাকার নাঙ্গুলী গ্রামের ৩৫ বছর বয়সী যুবক তছলিম উদ্দীন করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণ করলে শাবাব ফাউন্ডেশন তার দাফনকাজ সম্পন্ন করে। প্রথম দিকে করোনায় মৃত্যুর কথা শুনলে গ্রামের কেহ জানাজায় ও দাফনকাজে উপস্থিত হতো না। ৪/৫ জন করোনা আক্রান্ত মৃত্যু ব্যক্তির দাফন কাজ সম্পন্ন করে শাবাব ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে মানুষ জনকে ভয়ভীতির উর্ধ্বে থেকে জানাজায় ও দাফনকাজে অংশগ্রহণের অনুরোধ জানানোর পর থেকে পরবর্তী জানাজাগুলোতে অল্প সংখ্যক লোকজন অংশগ্রহণ করতে শুরু করে। করোনা পরিস্থিতি শুরু হওয়ার পর থেকে ১৪ জুলাই-২১ পর্যন্ত নলছিটি উপজেলায় ও ঝালকাঠি জেলায় দুইজনসহ মোট ২৫ জন মৃত্যু ব্যক্তির দাফন কাজ সম্পন্ন করেছে শাবাব ফাউন্ডেশন। ২৫ জনের মধ্যে ২২ জন পুরুষ ও ৩ জন মহিলা। করোনা পরিস্থিতি শুরু হওয়ার পর সরকারিভাবে কিছু লোকজনকে নিয়ে দাফনকাজ সম্পন্ন করার জন্য একটি ও বেসরকারিভাবে আরও একটি ইসলামি দলের পক্ষ থেকে কমিটি গঠন করা হয়। কিন্তু ওই কমিটি একজনেরও দাফন কাজ সম্পন্ন করেনি।
এদিকে গত বছর শাবাব ফাউন্ডেশন ২৬ সদস্য বিশিষ্ট পুরুষ ও ৪ সদস্য বিশিষ্ট মহিলা কমিটি গঠন করে। এই সংগঠনের সদস্যরা নিজেদের অর্থ ব্যয় করে দাফনকাজগুলো সম্পন্ন করে আসছে। সরকারিভাবে তিন দফায় কিছু পিপিইসহ উপকরণ সরবরাহ করে। যা প্রয়োজনের তুলনায় নগন্য।শাবাব সংগঠনের সদস্যরা নিজেদের বাইকে করে এবং ভাড়া করে নেয়া যানবাহনে করোনায় মৃত্যু বরণকারী ব্যক্তিদের বাড়িতে উপস্থিত হয়ে দাফনকাজ সম্পন্ন করে। বর্তমানে বর্ষা মৌসুমে ও বৈরি আবহাওয়ায় প্রত্যন্ত অঞ্চলে মৃত্যু বরণকারীদের বাড়িতে পৌছানোর জন্য মাইক্রোবাস কিম্বা এ্যাম্বুলেন্স প্রয়োজন। সরকারিভাবে এই বাহনের সার্ভিস ও শাবাব ফাউন্ডেশনের পুরুষ ও মহিলাসহ ৩০ সদস্যদের পিপিই,হ্যান্ডগ্লোভস,উন্নতমানের মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার পর্যাপ্ত পরিমাণে সরবরাহ দরকার।
মুফতি জয়নাল আবেদীন, মুফতি হানজালা নোমানী, মুফতি সাইফুল ইসলামসহ ২৬ সদস্যের এই মানবিক সংগঠনে সাংবাদিক মুঃ মনিরুজ্জামান মুনিরও সদস্য হিসেবে রয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর
© All rights reserved © Dainik News Bangladesh 24
Theme Customized By Shakil IT Park